জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট ভালো করার উপায়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে যারা রাষ্ট্রবিজ্ঞান,
সমাজকর্ম,সমাজবিজ্ঞান,
দর্শন,ও ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস, বাংলা, মনোবিজ্ঞা,  ইত্যাদি সাবজেক্ট নিয়ে অনার্স করতেছেন।তাদের মধ্যে অনেকেই আছে অনেক ভাল পড়াশোনা করেন কিংবা অনেক ভাল পরীক্ষা দিয়েও রেজাল্ট ভাল হচ্ছেনা?

*কিন্তু কেন হচ্ছেনা?
*কিভাবে স্টাডি করলে ভাল করা সম্ভব?
*পরীক্ষায় কিভাবে লিখলে ভাল নাম্বার পাওয়া যেতে পারে?

# যেভাবে পড়বেন:——-
১/প্রথমে অতিসংক্ষিপ্ত সকল বোর্ড পড়বেন এবং সাথে সাজেশনের ৯৯%ও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন গুলো পড়বেন।
২/তারপর বোর্ডের খ ও গ বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলো ও সাজেশনের ৯৯% প্রশ্নগুলো খাতায় লিখবেন এবং সেখান থেকে যে প্রশ্নগুলো খুবই ইম্পোর্টেন্ট সেগুলোকে আলাদা করে নোট করবেন।তবে সর্বোচ্চ ১২-১৪টি প্রশ্ন করে।যে গুলো আসার সম্ভাবনা ৯৫%-১০০%।
৩/সেগুলোকে এমন ভাবে বুঝে বুঝে পড়বেন যে,যদি পরীক্ষায় আসে যাতে ভাল করে লিখা যায়।
৪/আর বাকি যে প্রশ্নগুলো রয়েছে খাতায় উঠানো সেগুলো থেকে আপনি যে সালে পরীক্ষা দিবেন তার আগের সালের প্রশ্নগুলো বাদ দিয়ে বাকি গুলোর উপর মোটামুটি ধারনা নিবেন পরীক্ষায় আসলেও যাতে লেখা থেমে না থাকে।
###যেভাবে লিখবেন ঃ

১/At frist,Time maintain করতে হবে।Time maintain খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যেকটি পরীক্ষার জন্যে।তাই টাইম টাকে বন্টন করতে হবে কোন প্রশ্নতে কতটুকু সময় দিবেন।
আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে আমি যেভাবে এক্সাম দিয়েছি সেই টাইম বন্টন টা তুলে ধরলাম:—–
প্রশ্নটা পড়াসহ ক ও খ বিভাগের জন্য ১:৩০ মিনিট।
গ বিভাগের জন্যে প্রতি প্রশ্নে ৩০ মিনিট করে ৫ টি প্রশ্নে ২:৩০মিনিট।
মোট==৪ :০০ঘন্টা।
২/প্রথমে (ক)-বিভাগ লিখবেন।খুব স্পষ্টভাবে সতর্কতার সাথে বানান গুলো খেয়াল করে।
৩/তারপর (খ)-বিভাগ লিখবেন।যেগুলো আপনি খুব ভাল পাড়েন সেগুলো আগে লিখবেন।তবে খ-বিভাগের জন্য সর্বোচ্চ ১-২পেইজ লিখবেন।যদি স্ট্যাপের প্রশ্ন হয় সর্বোচ্চ ৪-৫টি স্ট্যাপ দিবেন।
৪/সর্বশেষে গ- বিভাগ লিখবেন।যেগুলো আপনি ভাল পাড়েন সেগুলো আগে লিখবেন।প্রতিটি স্ট্যাপের প্রশ্নের জন্যে ভূমিকা,উপসংহার সহ সর্বোচ্চ ১২টি স্ট্যাপ দিবেন।তবে ১ম প্রশ্নে যদি ১২ টা দেন লাস্ট প্রশ্নেও ১২ টাই দেওয়ার চেস্টা করবেন।পেইজটা নির্ভর করবে হাতের লেখার উপর,কারন হাতের লেখা ছোট-বড় হতে পারে।তবে সর্বোচ্চ ৫-৬ পেইজেই যতেষ্ট।আর স্ট্যাপ গুলো স্পষ্টভাবে লিখবেন ও পেন্সিল/কলম দ্বারা আন্ডারলাইন করবেন।
৫/যত সম্ভব প্রশ্ন সবগুলো উত্তর করার চেস্টা করবেন।
৬/হাতের লেখা সুন্দর হোক বা না হোক লেখাগুলো স্পস্ট করে লিখবেন যাতে খাতার সৌন্দর্য্যটা বজায় থাকে।

Similar Posts