জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীর করনীয়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা, আগামী ২০ জুন প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল প্রকাশ করা হবে। তোমাদের কিছু প্রশ্নোত্তর এবং পরবর্তী করণীয় সমূহ দেখে নাও।

তোমরা ২৫০ টাকা দিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে যে প্রাথমিক আবেদন করেছো, কলেজ এবং সাবজেক্ট চয়েস দিয়েছো সেটার ফলাফল আগামী ২০ জুন ২০২২, রোজঃ- সোমবার বিকাল ৪টায় প্রকাশ করা হবে। মেসেজের মাধ্যমে অথবা অনলাইনে কলেজ এবং সাবজেক্ট দেখতে পাবে।

ফলাফল দেখার নিয়ম ✔✪ মেসেজঃ- NU ATHN roll no (ভর্তি আবেদনে উল্লেখিত রোল) সেন্ড করবেন 16222 নাম্বারে। অথবা
✔✪ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইটে লগইন করে দেখতে পাবেন।

✪এরপর ভর্তি ফরম পূরণ করে প্রিন্ট কপি এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে কলেজ গিয়ে ভর্তি ফি দিয়ে ভর্তি কনফার্ম করলেই কাজ শেষ তোমার। অবশ্যই ২৮ জুনের মধ্যে এই কাজটি শেষ করতে হবে।

✪সোমবার ১ম মেরিট দিবে, ১ম মেরিটে সুযোগ না পেলে ২য় মেরিটের অপেক্ষা করবে৷ সাধারণত ১ম মেরিট গুলোর ভর্তি কার্যক্রম শেষ হলে ২য় মেরিট দেয়৷ ২য় মেরিটেও সুযোগ না পেলে রিলিজ স্লিপে নতুন করে ৫টি কলেজ চয়েস দেয়ার সুযোগ পাবে৷ সুতরাং আশাহত হবার কিছুই নেই৷ আর ২য় মেরিট না দিলে প্রথম মেরিটের পর রিলিজ স্লিপ দিবে।

☞ এবার এসো মাইগ্রেশনের বিষয়টা একটু ক্লিয়ার করি:
অনেকেই সাবজেক্ট মাইগ্রেশনটা বুঝো না বা বুঝলেও কনসেপ্ট ক্লিয়ার না৷ মাইগ্রেশন হয় মূলত নিচ থেকে উপরে৷
ধরো তোমার সাবজেক্ট চয়েস লিস্ট টা ছিলো এমন:
১.ইংরেজি
২.বাংলা
৩.অর্থনীতি
৪.সমাজবিজ্ঞান
৫.মার্কেটিং
এখন ১ম মেরিটে আপনি সমাজবিজ্ঞান পেলে, যদি মনে করো সমাজবিজ্ঞানে পড়বে না তাহলে সমাজবিজ্ঞানে ভর্তি হয়ে ওয়েবসাইটে লগ ইন করে মাইগ্রেশন অন করে দিবেন৷ তাহলে ২য় মেরিট লিস্ট দিলে ১-৩ এর মধ্যে যেকোনো সাবজেক্ট পাবে (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)। কেউ যদি ১ম মেরিটে চয়েস লিস্টের ১নং সাবজেক্ট পায় তাহলে সে মাইগ্রেশনের সুযোগ পাবে না৷ মোট কথা মাইগ্রেশন হবে নিচ থেকে উপরে৷ যদি ১ম মেরিটে পছন্দের সাবজেক্ট পাও তাহলে অবশ্যই ওয়েবসাইটে লগ ইন করে মাইগ্রেশন অফ করে দিবে। আশা করি ক্লিয়ার৷

➤অনেকের প্রশ্ন ভর্তি যুদ্ধের ভালো প্রিপারেশন আছে এখন জাতীয়তে ভর্তি হয়ে থাকবো কিনা? আর পাবলিকে চান্স পেলে চলে যেতে পারবো তো?
হাতির ও পা পিছলে টাইপ একটা কথা আছে৷ অনেক ভালো প্রিপারেশন থাকার পরেও অনেক সময় পাবলিকে চান্স হয় না৷ সব দিক বিবেচনায় ভর্তি হয়ে থাকাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে৷ আর পাবলিকে চান্স পেলে যেকোনো মুহূর্তে জাতীয়তে ভর্তি বাতিল করে নিজের কাগজপত্র তুলে পাবলিকে ভর্তি হতে পারবে কোনো সমস্যা নেই৷ ভর্তি, ভর্তি বাতিল সব মিলিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে এটাই লস।

এখন বলছি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ১ম বর্ষ ভর্তি হতে যা যা লাগবেঃ

???? ওয়েবসাইট থেকে পূরণকৃত চূড়ান্তফর্ম ।
???? এসএসসি ও এইচএসসি এর মূল মার্কশীট।
???? প্রশংসাপত্রের মূল কপি।
???? পাসপোর্ট ও স্টাম্প সাইজের রঙিন ছবি ২কপি বা ৪কপি।
???? উল্লেখিত কাগজগুলোর ২ বা ৪ সেট ফটোকপি।
???? SSC & HSC রেজিষ্ট্রেশন কার্ডের ২বা ৪ সেট ফটোকপি। ( এছাড়া একেক কলেজ
একেক রকম কাগজপত্র চেয়ে থাকে)।
???? ভর্তির টাকা কলেজ ভেদে হতে পারে
যেমন সরকারি তে ৪ হাজার থেকে ৬০০০৳ মধ্যে হতে পারে। আর বেসরকারি তে ৬ হাজার থেকে ১৫ -২২হাজার ও হতে পারে। সব কিছু কলেজ উপর নির্ভর
ভর্তি সময় কলেজ নোটিশে সব বলে দিবে।

বিদ্রঃ- কলেজভেদে কাগজপত্র এবং বিভিন্ন তথ্য ও টাকা কম বা বেশি লাগতে পারে।

☞✪✔জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু হবে ৩ জুলাই।

Similar Posts